শিবচরে কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ঘটনা নিয়ে চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি’র কঠোর হুশিয়ারি

0
104

রবিউল হাসান, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগের দাবী চেয়ে কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটিয়েছে। এরকম ঘটনা শিবচরের মতো জায়গায় আশা করা যায় না। ওই ঘটনায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতির সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে এবং তাকে বহিস্কার করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের কেউ যদি জড়িত থাকে তাকেও বহিস্কার করা হবে। শিবচর উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী এমপি। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি।

তিনি আরো বলেন, শিবচরে শিক্ষার মান অনেক ভালো। তারপরও কিছু অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটে, এটা দুঃখজনক। বর্তমানে শিক্ষকদের যেই সুযোগ সুবিধা সরকার দিচ্ছেন, তারপরও কেন শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফরম ফিলাপের জন্য অতিরিক্ত ৫০০টাকা করে নেওয়ার দরকার? মিলাদের কথা বলে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৫০০টাকা করে নেওয়াটা অন্যায়।

তিনি আরো বলেন, কিছু লোক আছে যারা বড় বড় চেয়ার পেলে ভুলে যায় যে, ওই চেয়ারটি না থাকলে একটা মাছিও তার কাছে যাবে না। মানুষের দূর্বলতাকে কাজে লাগিয়ে, ছোট ছোট শিক্ষার্থীদের দিয়ে আন্দোলন করিয়ে অস্থির পরিস্থিতি সৃষ্টি করার পায়তারা করে। ওই সমস্ত লোকের আওয়ামী লীগে কোন জায়গা নেই। কি লাভ হলো? আন্দোলন করিয়ে, সরকারী গাড়ি ভেঙে? শুধু শুধু কয়েকজন শিক্ষার্থীরা জেলে গেল, শিক্ষকরা জেলে গেলো। এরকম ঘটনা শিবচরের জন্য কাম্য নয়।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিয়াজ উদ্দিন খান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন মোল্যা, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মুনির চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক, শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান সামসুদ্দিন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান, শিবচর উপজেলা সমিতির সাধারন সম্পাদক এস.এম লোকমান হোসেনপ্রমুখ। সমিতির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মো. সেলিম আকন্দ অনষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন। সভা পরিচালনা করেন ইউসুফ মুরাদ খান পারভেজ ও তুহিন রেজা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here