মাদারীপুর শিবচরে প্রতারণা মামলায় প্রধান শিক্ষকসহ ৩শিক্ষক গ্রেফতার, জেল হাজতে প্রেরণ

0
104

নিজস্ব প্রতিবেদক
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যের দায়েরকৃত মামলায় মাদারীপুর জেলার শিবচরের কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ ২শিক্ষক ও কর্মচারীকে মঙ্গলবার সকালে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাখাওয়াত হোসেনসহ তিন জনের বিরুদ্ধে শিবচর থানায় প্রতারণার মামলা করেছেন (মামলা নাম্বার-১৩, তারিখ: (১০-১২-২০১৯ইং) বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির এক সদস্য। আটককৃত প্রধান শিক্ষকসহ ২শিক্ষক ও কর্মচারীকে আজ বুধবার দুপুরে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
মামলার বিবরণ ও শিবচর থানা পুলিশ জানায়, কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাখাওয়াত হোসেন, আইসিটি বিষয়ক সহকারী শিক্ষক আলমগীর মন্ডল ও অফিস কাম কম্পিউটার অপারেটর লালন ফকিরের নামে বাদী হয়ে শিবচর থানায় প্রতারণার মামলা করেছেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য মতিউর রহমান মাদবর। চলতি বছর এসএসসির ফরম পূরণে ৫৩জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে সরকারী নির্ধারিত টাকার অতিরিক্ত ৫০০ টাকা করে নেওয়া হয়েছে। এভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে প্রতারণা করে প্রায় ২৬হাজার ৫শত টাকা বেশি নিয়েছেন বলে মামলার বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন।
উল্লেখ্য, চলতি বছর এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা নেওয়াসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ও পরীক্ষার্থীরা প্রধান শিক্ষক সাখাওয়াত হোসেন-এর পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করে। ওই সোমবার ০৯ ডিসেম্বর রাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়ি ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধরা এবং পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে।
আটককৃত প্রধান শিক্ষক শাখাওয়াত হোসেন জানান, এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে মিলাদের জন্য অতিরিক্ত কিছু টাকা নেওয়া হয়েছে। এ টাকা বিদ্যালয়ের সকল ছাত্রছাত্রীদের মিষ্টি বিতরণের জন্য খরচ করা হয়।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক মীর নাজমুল হাসান জানান, কুতুবপুর বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির এক সদস্য প্রধান শিক্ষকসহ ৩শিক্ষকের বিরুদ্ধে একটি প্রতারণা মামলা করেছে। মামলার পর আসামীদের সকালে গ্রেফতার করা হয়।
শিবচর থানা অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ জানান, ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, কুতুবপুর বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির এক সদস্যের দায়েরকৃত মামলায় প্রধান শিক্ষকসহ ৩শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুপুরে তাদেরকে মাদারীপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here