মাদারীপুরে মাদ্রাসার ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা \ প্রধান আসামীসহ গ্রেপ্তার-৩

0
5

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের গাছবাড়িয়া জামিয়া কারিমিয়া মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ছাত্র হাসিব মাতুব্বরকে বেত দিয়ে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় মাদ্রাসার তিন শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে আসামীদের আদালতে প্রেরণ করা হয়।
মামলা এজাহার, পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গাছবাড়িয়া জামিয়া কারিমিয়া মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ছাত্র হাসিবকে বেত দিয়ে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় নিহতের বাবা আনোয়ার মাতুব্বর বাদী হয়ে শুক্রবার সকালে সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
মামলায় মাদ্রাসার শিক্ষক ইউসুফ আলী মোল্লাকে প্রধান আসামী করে অধ্যক্ষ ইলিয়াছ মোল্লাসহ ৩ জনকে আসামী করে থানায় মামলা করা হয়। পরে পুলিশ মাদ্রাসার দুই শিক্ষক ও আপন দুই ভাই ইউসুফ আলী মোল্লা ও অধ্যক্ষ ইলিয়াছ মোল্লাকে গ্রেফতার করে। এর আগে বুধবার শিক্ষক আবুল বাসারকে আটক করে। আসামী এই তিন শিক্ষকের বাড়ী মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার মোল্লাকান্দি গ্রামে।
বৃহস্পতিবার রাতে মাদ্রাসার দুই শিক্ষক ও আপন দুই ভাই ইউসুফ আলী মোল্লা ও অধ্যক্ষ ইলিয়াছ মোল্লাকে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। সকালে মামলা দায়ের হলে তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
উল্লেখ্য, গাছবাড়িয়া জামিয়া কারিমিয়া মাদ্রাসের ২য় শ্রেণীর ছাত্র হাসিবকে ৫ শত টাকার চুরি অভিযোগে ঐ মাদ্রাসার শিক্ষক ইউসুফ আলী মোল্লাসহ অন্য শিক্ষকরা বুধবার বেত দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে।
ইলিয়াছ মোল্লা ও ইউসুফ মোল্লার ভাই ইসমাইল মোল্লা জানান, আমার ভাইরা নির্দোষ। আমি চাই পুলিশ সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সঠিক বিষয় তুলে ধরবে। ইনশাহআল্লাহ আমার ভাইরাসহ মাদ্রাসার শিক্ষক মুক্তি পাবেন।
মামলার বাদী নিহত হাসিবের বাবা আনোয়ার মাতুব্বর বলেন, আমি প্রশাসনের কাজে খুশি। পুুলিশ তিনজন আসামীকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছেন। আশা রাখি আদালতের মাধ্যমে সঠিক বিচার পাবো।
এ ব্যাপারে মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাওগাতুল আলম বলেন, মাদ্রাসার ছাত্র নিহতের ঘটনায় ৩জনকে আসামী করে নিহতের বাবা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আমরা মামলার ৩ জন আসামীকেই গ্রেফতার করে জেলা হাজতে প্রেরণ করেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here