মাদারীপুরে ঘূর্ণিঝড়ে ঘরে চাপা পড়ে গৃহবধূর মৃত্যু

0
60

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে মাদারীপুর সদর উপজেলার ঘটমাঝিতে বেলা ২টার দিকে ঘরের ভিতর আলমারির নিচে চাপা পড়ে সালেহা বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া রাজৈর উপজেলায় গাছে নিচে পড়ে ৬ জন আহত হয়েছে। অন্যদিকে চৌহদ্দি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ক্লাসরুম ভেঙ্গে গেছে।
হাসপাতাল ও স্থানীয় সূত্র জানা গেছে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে রবিবার বেলা বাড়ার সাথে সাথে দমকা বাতাস বইতে থাকে। এতে সদরের বেশ কয়েকটি আধাপাকা ঘর ভেঙ্গে যায়। বেলা ২টার দিকে সদর উপজেলার ঘটমাঝি গ্রামের আজিজ খানের দোচালা টিনের ঘর বাতাসে উড়ে গিয়ে দুমড়ে মুছড়ে যায়। এসময় ঘরে থাকা আজিজ খানের স্ত্রী সালেহা বেগমের (৪৫) উপর ঘর ভেঙ্গে পড়ে। এতে ঘরের ভিতর থাকা আলমারির নিচে চাপা পড়ে আহত হয়। পরে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সাহেলা বেগম দীর্ঘ দিন ধরে হার্ডের সমস্যায়ও ভুগছিলেন। তার পাঁচ মেয়ে ও স্বামী রয়েছে।
সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রিয়াদ মাহমুদ জানান, ‘যখন সাহেলা বেগমকে হাসপাতালে আনা হয়, তার আগেই তিনি মারা গিয়েছে। হাসপাতালে তার কোন ট্রিটমেন্ট করা হয়নি। পরে তার স্বজনরা মৃতদেহ নিয়ে যায়।’
এছাড়া সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের চৌহদ্দি গ্রামে ‘চৌহদ্দি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ক্লাসরুমটি বাতাসে পড়ে যায়। কালকিনি উপজেলার নিন্মাঞ্চলে আমন ধানেরও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অন্যদিকে ঘূণিঝড় বুলবুলের আঘাতে লন্ডভন্ড মাদারীপুরের রাজৈরে উড়তি ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কাঁচা ও আধাপাকা ঘরবাড়িসহ রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ের কারণে গাছপালা পড়ে আহত হয়েছে অন্তত ৬ জন। বিদ্যুতের তার ও খুঁটি ভেঙ্গে গেছে অনেক জায়গায়। বৃষ্টি পানিতে একাকার হয়ে গেছে মৎস্য ঘের ও ধানের ক্ষেত। রাজৈর পৌরসভার, মজুমদারকান্দি, আমগ্রাম, কদমবাডীর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here