মুল্যবৃদ্ধির গুজবে লবন কেনার হিড়িক,আটক-২ ও জরিমানা

0
454

নিজস্ব প্রতিবেদক:
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মুল্যবৃদ্ধির গুজব আতঙ্কে মাদারীপুরের বিভিন্ন বাজারে অগ্রিম লবন কেনার হিড়িক পড়েছে। খুব দ্রæতই লবন শুন্য হয়ে গেছে স্থানীয় দোকানগুলোতে। মঙ্গলবার বিকাল থেকে জেলার বেশ কয়েকটি বাজারের দোকানগুলোতে লাইন দিয়ে এ লবন কেনার চিত্র দেখা গেছে। এসময় অসাধু বিক্রেতারা হঠাৎ করে লবনের দাম বাড়িয়ে দেয়। ক্রেতারা ১০০ টাকা কেজিতে লবন কিনেছেন। এদিকে বাজার মূল্যের বেশি দামে লবন বিক্রির অভিযোগে কালকিনির ফাসিয়াতলা বাজারের দাস স্টোরের মালিককে ১০হাজার টাকা জমিরানা করা হয়েছে। শিবচরের পাচ্চর বাজার থেকে ২ লবণ ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেন ভ্রাম্যমান আদালত।
বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, জেলার প্রায় ফেসবুক ব্যবহাকারীরা মঙ্গলবার সকাল থেকে পোষ্ট করে চলছেন যে আগামীকাল বুধবার সকাল থেকে লবনের প্রতি কেজি ১৩০ টাকা করে প্রত্যেক বাজারে বিক্রি করা হবে। এ গুজবের ফলে সাধারন মানুষের মাঝে পেঁয়াজের পর লবনের মুল্যবৃদ্ধির আতঙ্ক মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পরে। এতে করে ক্রেতা সাধারন মানুষ তাদের বাসা-বাড়িতে অগ্রিমভাবে কম দামে লবন ক্রয় করে রাখছেন। মাদারীপুর পুরান বাজার, শিবচর, কালকিনি, ভুরঘাটা, রাজৈররের বিভিন্ন বাজারের দোকানগুলো থেকে এক নিমিষেই লবন শেষে হয়ে যায়। এ বিষয়টি নিয়ে সচেতন মহলের মাঝে বিভিন্ন মিশ্রপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।
বাজারে লবন কিনতে আসা আকরাম ও সুকুমার বলেন, আমরা ফেসবুকে বিভিন্ন মানুষের লেখার মাধ্যমে জানতে পারলাম যে বুধবার সকাল থেকে লবনের দাম অনেক বেড়ে যাবে। তাই আগেভাগেই কম দামে লবন কিনে রেখেছি।
শিবচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসাদুজ্জামান জানান, তিনি বাজার পরিদর্শনের সময় এলাকার মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা গুজবে কান দিবেন না। শিবচরে যেই পরিমান লবণ মজুদ রয়েছে আমার বিশ্বাস আগামী ২মাস খেয়ে লবণ শেষ হবে না।
রাজৈর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহানা নাসরিন বলেন, “বাংলাদেশে লবনের কোন সংকট নেই। যারা এ গুজবের সৃষ্টি করেছে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”
মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন গিয়াস বলেন, আমরা বাজার মনিটরিং করছি। বাজারে লবনের কোন সংকট নেই। সব গুজব। অতিরিক্ত দামে কেউ লবন বিক্রি করলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।
মাদারীপুর জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়টি জরুরী তদন্ত করে ব্যবস্থ্য নেয়া হচ্ছে। এক দোকানীকে জরিমানাও করা হয়েছে। বিভিন্ন বাজারে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়জিত রয়েছে বাজার মনিটিরিং এর জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here