‘তুর্ণা নীশিথা’র লোকোমোটিভ মাস্টার দায়ী: রেলমন্ত্রী

0
29

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনায় ‘তুর্ণা নীশিথা’ ট্রেনের লোকোমোটিভ মাস্টার সিগনাল ভঙ্গ করেছেন। বিস্তারিত জানার জন্য জেলা প্রশাসন ও রেলপথ মন্ত্রণালয় থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, নিহতের পরিবারের ক্ষতি টাকা দিয়ে পূরণ করা সম্ভব নয়। তবুও রেলপথ মন্ত্রণালয় থেকে নিহতের প্রত্যেকের পরিবারকে ১ লাখ টাকা এবং জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, তাৎক্ষণিকভাবে তুর্ণা নীশিথার লোকোমোটিভ মাস্টার ও সহকারী মাস্টারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এখানে উদয়নের কোনো ত্রুটি দেখছি না।

উল্লেখ্য, আজ ভোর রাত পৌনে ৩টার দিকে কসবা উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অন্তত ১৫ জন নিহত ও শতাধিক যাত্রী আহত হয়েছেন।

এদিকে নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করে প্রত্যেক পরিবারকে ২৫ হাজার টাকা করে দিয়ে মরদেহ বাড়িতে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান।

তিনি জানান, প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মিতু মরিয়মকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এর আগে ভোররাত পৌনে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা ও সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই ৯ জন এবং কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ জন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে ২ জন ও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১ জন মারা যান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here